Ad Code

Responsive Advertisement

সরকারি শিক্ষক দ্বারা প্রাইভেট টিউশন বন্ধ করতে বিভিন্ন বিদ্যালয় পরিদর্শনে শিক্ষামন্ত্রী - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা 
১৮ ডিসেম্বর ২০২০  
শুক্রবার

বক্সনগর প্রতিনিধিঃ যে সমস্ত সরকারি শিক্ষকরা বেআইনি ভাবে প্রাইভেট টিউশন করেন, সোনামুড়া মহকুমা শাসকের অভিযানে যে সমস্ত শিক্ষকদের নাম উঠে এসেছিল। কিন্তু পরবর্তী সময় শিক্ষকদের শোকজ দেওয়ার পরেও  উনারা টিউশন চালিয়ে যাচ্ছেন, সেই খবর শিক্ষামন্ত্রীর কাছে গিয়ে পৌঁছে তাই আজ খুদ শিক্ষামন্ত্রী রতন লাল নাথ আগরতলা থেকে সোনামুড়া ছুটে আসেন এবং আবারো শিক্ষামন্ত্রীর হাতে ধরা পড়েন দুই সরকারি শিক্ষক। সকালে সোনামুড়া ডাক বাংলোয় এসে শিক্ষামন্ত্রী, মহকুমা শাসক ও এসডিপিও নেতৃত্বে প্রাইভেট টিউশন সেন্টারে অভিযান চালান। অভিযানে দুই জন শিক্ষক কে হাতে নাতে ধরেন মহকুমা শাসক এবং  আরো কিছু সংখ্যক শিক্ষক টিউশন সেন্টার ছেড়ে চলে যান। 


তার পর সকাল ১১ টায় শিক্ষামন্ত্রী সোনামুড়ার কিছু বিদ্যালয়,কলেজ পরিদর্শন করেন। তার মধ্যে প্রথমে তিনি সোনামুড়া এনসিআই বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন তার পর চলে যান সোনামুড়া ইংলিশ মিডিয়াম দ্বাদশ শ্রেণি বিদ্যালয়ে সেখানে গিয়ে অনেক শিক্ষকদের অনুউপস্থিত। প্রায় দীর্ঘ দিন ছুটির পরেও এখনো অনুপস্থিত থাকায় তাদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা জন্য সিপাহীজলা বিদ্যালয় পরিদর্শককে নির্দেশ দেন তিনি। পরবর্তীতে চলে জান সোনামুড়া বালিকা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় সেখানে সব কিছু ঠিকঠাক প্রায় এবং সকল শিক্ষকদের অনুরোধ করেন যাতে করে কোনো শিক্ষক প্রাইভেট টিউশন না করেন। 


তিনি বলেন একজন মহিলা শিক্ষিকাও তো প্রাইভেট টিউশন করন না তাহলে পুরুষ শিক্ষকদের এত নাম আসে কেন। তাছাড়া তিনি আর বলেন আপনার বিদ্যালয়ে বেশি করে পড়ান প্রয়োজনে সরকার আপনাদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। তবো কোনো শিক্ষক প্রাইভেট টিউশন করতে পারবেন না এমনকি বেসরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও। শিক্ষামন্ত্রী ছাত্র ছাত্রীদের ও বলেন যে কিছু প্রয়োজন হলে বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছে যাও প্রয়োজনে রাত পর্যন্ত ক্লাস করো। 


পরিবর্তী সময় তিনি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে যান সেখানে গিয়ে কলেজ পরিদর্শন করেন। তাছাড়া দশ বিএড পাশ ছাত্র ছাত্রী উনার সাথে ডাক বাংলায় দেখা করেন এবং বেকার  যুবকরা আবেদন করেন যেকোনো বিদ্যালয়ে ফ্রী তে কোচিং করার জন্য তাদের কে সুযোগ দেওয়া জন্য এবং তিনি তাদের কে আশ্বস্ত করেন। এখন দেখার বিষয় যে সকল সরকারি শিক্ষকরা বেআইনি ভাবে প্রাইভেট টিউশন চালিয়ে গেছেন তাদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা গ্রহণ করেন শিক্ষাদপ্তর।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য

Close Menu