HeadLogo

ঋণের দায়ে ফাঁসিতে আত্মঘাতী এক দিনমজুর - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
০৬ নভেম্বর ২০২০  
শুক্রবার         

ধর্মনগর প্রতিনিধিঃ করোনা মোকাবিলায় লাগাতার লকডাউনের ফলে দেশের অর্থনীতি তলানিতে। যদিও লকডাউনের আগে থেকেই দেশ অর্থনৈতিক ভাবে অনেকটাই দুর্বল। তারি মধ্যে আচমকা লকডাউনে কাজ হারিয়েছেন অনেকেই। ফলে কাজ হারিয়ে সংসার পরিচালনা করতে গিয়ে ঋণে জর্জরিত বহু পরিবার। এমতাবস্থায় বৃহস্পতিবার ধর্মনগরে ঋণের দায়ে নিরুপায় হয়ে ফাঁসিতে আত্মঘাতী হলো এক দিনমজুর। ঘটনা ধর্মনগর থানাধীন বড়ুয়াকান্দি গ্রাম পঞ্চায়েতের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে।  


মৃত ব্যক্তির নাম হীরালাল দাস  (৩৭)। পেশায় সে একজন কাঠমিস্ত্রি ছিল।বাড়িতে উনার স্ত্রী ও এক পুত্র রয়েছেন।সে পানিসাগর মহকুমার জলবাসা নয়দূন এলাকার বাসিন্দা হলেও  কর্মসূত্রে দীর্ঘ প্রায় এক বছর যাবৎ স্ত্রী ও পুত্রকে নিয়ে ধর্মনগর বড়ুয়াকান্দি স্থিত শ্বশুরবাড়িতে বসবাস করতেন।মৃতের স্ত্রী অপর্ণা দাস জানায় বর্তমানে তার স্বামী  হীরালাল দাস বহু টাকার ঋণগ্রস্থ হয়ে পরায় পাওনাদাররা প্রায়শই বাড়িতে এসে উনাকে অপমানিত করতেন। 


তাই ঋণে জর্জরিত হীরালাল প্রায় প্রতিদিনই নেশাগ্রস্ত অবস্থায় কাজ শেষে বাড়ি ফিরতেন। বুধবারও তেমনি নেশাগ্রস্থ হীরালাল বহুরাতে বাড়ি ফিরে বৃহস্পতিবার সকাল আনুমানিক ৭ টা নাগাদ প্রাকৃতিক কাজ করার জন্য বাড়ির শৌচালয়ে যান। কিন্তু  দীর্ঘক্ষন পেরিয়ে গেলেও সে ঘরে না ফিরে আসায়  বাড়ির লোকজনেরা তাকে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। দীর্ঘক্ষণ খোঁজাখুজির পরে অবশেষে  বাড়ির পাশের একটি জঙ্গলে হীরালালকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় ধর্মনগর থানায়। 


খবর পেয়ে ধর্মনগর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে মৃতদেহ উদ্ধার করে ধর্মনগর হাসপাতালের মর্গে পাঠান। ঋণের দায়েই তার স্বামী হীরালাল শেষ পর্যন্ত  আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে বলে তার স্ত্রী অপর্ণার অভিমত। ধর্মনগর থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করে দেন। এদিকে মৃত্যুর খবর পেয়ে মৃত হীরালালের পরিবারের লোকজনেরা জলাবাসা থেকে ধর্মনগরে ছুটে আসেন।ঘটনায় গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

কোন মন্তব্য নেই