HeadLogo

কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে রাজ্যের কুটির শিল্প ঝিমিয়ে পড়েছে - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
০৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
শুক্রবার 

তেলিয়ামুড়া প্রতিনিধিঃ আত্ম নির্ভর ত্রিপুরা গড়ার ক্ষেত্রে বাঁশের তৈরী সামগ্ৰী একটা বড়ো ভূমিকা নিতে পারে। এতে গ্রামীণ এলাকার ও প্রত্যন্ত এলাকার মানুষজন আর্থিক দিক দিয়ে অনেকটা স্বাবলম্বী হওয়ার ক্ষেত্রে বড়ো ভূমিকা নিতে পারে রাজ্যের অর্থকরী ফসল বাঁশ। রাজ্য বনদপ্তরের জাইকা প্রকল্পের মাধ্যমে এর প্রসার ঘটিয়ে জনজাতি অংশের মানুষ জনদের উৎসাহিত করে তুলতে হবে। তবেই এর স্বার্থকতা আসবে বলে মনে করছেন এলাকার শুভবুদ্ধি সম্পন্ন সচেতন মানুষেরা। 


জাতীয় সড়কের পাশে বড়োমুড়া ইকো পার্ক। যদিও বর্তমানে এই পার্কের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে " হাতাই কতর ইকো পার্ক"। এই পার্কটিকে অবলম্বন করে পার্কটির পাশে বণ দপ্তরের তরফ থেকে "ক্রাফ্টস  মোর"  নামে একটি শো-রুম খোলা হয়েছিল আজ থেকে প্রায় বেশ কয়েক বছর আগে।এই শো-রুম এ পাওয়া গেল বাঁশের তৈরী বিভিন্ন সামগ্রী। 


যার মধ্যে রয়েছে জুয়েলারী বক্স, হর্ণবিল, ফুল দানি, টেবিল চেয়ার  সহ আরো রকমারী সামগ্ৰী। এছাড়া এই শো-রুমে উপজাতিদের পরিধানের বস্ত্র ও রয়েছে।কথা প্রসঙ্গে জাইকা প্রকল্পের অধীনে এই শো-রুমে থাকা মার্কেটিং অ্যাস্টিটেন্ট  খোকন মিয়া জানান,এখানে ব্যাম্বু প্রোডাক্ট এর বিভিন্ন সামগ্রী পাওয়া যায়।


পূর্বে ঐ সব সামগ্ৰী খুব ভালো পরিমাণে বিক্রি করা যেত। কিন্তু বর্তমানে কোভিড-১৯ এর পরিস্থিতির কারণে মানুষজন আসেনা ৪-৫ মাস ধরে।‌ তাই সামগ্রী বিক্রয়ে ও  অনেকটা ভাটা পড়ে গেছে বলে জানান মার্কেটিং অ্যাস্টিন্টেন খোকন মিয়া।



কোন মন্তব্য নেই