HeadLogo

ত্রিপুরা আরবান ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের উদ্যোগে দুটি যাত্রীবাহী বাসের উদ্বোধন - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
২৪ আগষ্ট ২০২০
সোমবার

চুরাইবাড়ি প্রতিনিধিঃ বহু প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে উত্তরের ৫৪ কুর্তি কদমতলা বিধানসভা কেন্দ্রে ত্রিপুরা আরবান ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন থেকে  দুটি  যাত্রীবাহী বাস চালু হলো আজ। দুপুর দুটো নাগাদ টিআরটিসির উদ্যোগে কদমতলা টাউন হলে এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে টি আর টিসির দুটি বাস পরিষেবার উদ্বোধন হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টিআরটিসির চেয়ারম্যান দীপক মজুমদার। তাছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টিআইডিসির চেয়ারম্যান টিংকু রায়, ত্রিপুরা বিধানসভার উপাধ্যক্ষ বিশ্ববন্ধু সেন, কদমতলা পঞ্চায়েত সমিতির চেয়ারম্যান সুব্রত দেব, টিআরটিসির এম ডি সুভাষ চন্দ্র সাহা প্রমুখ। 


আজকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে শুভ সূচনা হয়। নারিকেল ভেঙ্গে ও ফ্ল্যাগ অফের মধ্য দিয়ে আজ থেকেই দুটি বাস চলাচলের শুভারম্ভ হয়। তারপর উপস্থিত অতিথিরা বক্তব্য  দিতে গিয়ে বলেন, দীর্ঘ ২৫ বছরের বাম জামানায় পূর্বের সরকার টিআরটিসিকে পঙ্গু করে দিয়েছে। রাজ্যে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় বসার পর টিআরটিসিকে গুটি গুটি পায়ে আবার ছন্দে ফিরিয়ে আনছে। তারই অঙ্গ হিসাবে উত্তরের কদমতলা এলাকায় দুটি বাস পরিষেবা দিয়ে নতুন ভাবে সংযোজন করল রাজ্য সরকার। তাছাড়া অতিথিরা বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন,এই দুটি লোকাল বাস সার্ভিস কদমতলা রাস্তায় চলাফেরা করবে। জানা গেছে একটি বাস বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী রানীবাড়ী থেকে সকালে ছাড়বে। 


এই বাসটি রানীবাড়ী টু মোটর স্ট্যান্ড ভায়া ধর্মনগর কলেজ এবং দ্বিতীয় যাত্রীবাহী বাসটি চুড়াইবাড়ি টু মোটর স্ট্যান্ড ভায়া ধর্মনগর কলেজ। লোকাল যাত্রীবাহী বাস সার্ভিসের জন্য ভাড়া এখনো নির্ধারণ করা হয়নি। খুব শীঘ্রই ভাড়া নির্ধারণ করা হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট দপ্তরের আধিকারিক।কদমতলা এলাকাটি রাজ্যের উত্তর জেলার একটি বর্ধিষ্ণু এলাকা বলে পরিচিত। একদিকে বাংলাদেশের সিলেট জেলা অন্যদিকে আসামের বরাক উপত্যকা। এই আন্তর্জাতিক এবং আন্তঃরাজ্য সীমান্তের মধ্যে অবস্থিত কদমতলা এলাকাটি এবং উত্তর জেলাসদর ধর্মনগরের পরেই কদমতলার অবস্থান। তাছাড়া কদমতলায় ব্লক অফিস রয়েছে, কৃষি, পি ডব্লিউ ডি‌ এবং বিদ্যুৎ দপ্তরে বিভাগীয় অফিস রয়েছেও এবং দ্বাদশ শ্রেণী বিদ্যালয় সহ নানা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে।  কিন্তু যোগাযোগ ব্যবস্থার তেমন উন্নয়ন হয়নি। নেই রাজধানী আগরতলার সাথে  কদমতলা বাসীর  সরাসরি যোগাযোগের ব্যবস্থা। তবে কদমতলা বাসীর দাবি এবার  কদমতলা আগরতলা রুটে যাত্রীবাহী বাস চালুর উদ্যোগ গ্রহণ  করা হোক। 


তবে আজকে টিআরটিসির দুটি যাত্রীবাহী লোকাল বাস সার্ভিস চালুর  মূল কান্ডারী টিংকু রায় তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। অতি শীঘ্রই কদমতলায় আরেকটি বাস পরিষেবা চালু হবে বলে জানান টিআরটিসির চেয়ারম্যান দীপক মজুমদার। আজ থেকে কদমতলায় যাত্রীবাহী দুটি লোকাল বাস সার্ভিস চালু হওয়াতে ছাত্র ছাত্রী শিক্ষক কৃষক থেকে শুরু করে নিত্যযাত্রীরা বেজায় খুশি।অপরদিকে কদমতলা ব্লকাধীন কুর্তি গ্রাম পঞ্চায়েতের অফিস প্রাঙ্গণে একটি লাইব্রেরীর শুভ উদ্বোধন করেন টিআইডিসির চেয়ারম্যান টিংকু রায়। সাড়ে সাত লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয়েছে লাইব্রেরীটি। প্রত্যন্ত এলাকা কুর্তিতে একটি লাইব্রেরী স্থাপনে অবিভাবক থেকে ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে খুশির আবহ বইছে।



কোন মন্তব্য নেই