করোনায় বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি ধর্মনগর জেলা হাসপাতালে, আক্রান্ত ২ চিকিৎসক - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
১৪ আগষ্ট ২০২০
শুক্রবার

ধর্মনগর প্রতিনিধিঃ রাজ্যের সাথে সাথে প্রতিদিন উত্তর জেলায় বারছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ফলে সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনা যুদ্ধে প্রথম সারির যোদ্ধাদের আক্রান্তের পরিমাণ। যেমন বিগত কিছুদিন পূর্বে ধর্মনগর মহিলা থানার ৫ মহিলা কনস্টেবল করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। এবার বৃহস্পতিবার সকালে ধর্মনগর থানায় ডিউটিরত ১ টিএসআর জওয়ানের শরীরে মিলল করোনা সংক্রমণ। পাশাপাশি  বৃহস্পতিবার সকালে  একইসাথে ধর্মনগরের জেলা হাসপাতালে ২ চিকিৎসকের এন্টিজেন টেস্ট করা হলে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আশায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে গোটা ধর্মনগর হাসপাতাল চত্বরে। 


জানা গেছে বুধবার রাতে ধর্মনগর হাসপাতালে এক টিএসআর জওয়ান শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে ভর্তি হন। সরকারি নির্দেশ মোতাবেক মঙ্গলবার সকালে তার এন্টিজেন টেস্ট করা হলে পজেটিভ রিপোর্ট আসে। এই টিএসআর জওয়ানটি ধর্মনগর হাসপাতালে আপৎকালীন বিভাগে ভর্তি থাকার কারণে এন্টিজেন রিপোর্টে তার পজেটিভ রিপোর্ট আসার পর বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালে আপাতকালীন অর্থাৎ এমারজেন্সিতে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার এন্টিজেন টেস্ট করালে সেই চিকিৎসকেরও পজিটিভ রিপোর্ট আসে।


এই কর্তব্যরত চিকিৎসক বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ধর্মনগর হাসপাতালে এমারজেন্সিতে বসেই রোগী দেখছিলেন। ফলে ওনার পজিটিভ রিপোর্ট আসার পরেই সকলের মনে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। অপরদিকে বৃহস্পতিবার সকালে ধর্মনগর হাসপাতালের  প্রসূতি বিভাগের  এক চিকিৎসকের এন্টিজেন টেস্ট করলে করোনা সংক্রমনের হদিস মেলে। করোনা আক্রান্ত সেই চিকিৎসক  বিগত বেশ কিছুদিন যাবতই  প্রসূতি বিভাগের ডিউটিতে ছিলেন। ফলে বৃহস্পতিবার সকালে  ধর্মনগর জেলা হাসপাতালে দুই চিকিৎকসহ মোট তিনজন  করোনা আক্রান্তের খবর চাউর হতেই হাসপাতাল চত্বরের চারিদিকেই ব্যাপক বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। 


অনেক রোগীরা হাসপাতালে এসে ডাক্তার না দেখিয়েই ফিরে যান। আবার অনেকে ভর্তি থাকা অসুস্থ রোগীদের স্ব-ইচ্ছায় বাড়ি ফিরেয়ে নিয়ে যান।করোনা পজিটিভ দুই চিকিৎসককে হোম আইসোলেসনে রাখা হয়েছে এবং আক্রান্ত টিএসআর কর্মীকে পানিসাগর কোভিড কেয়ার সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। পরবর্তীতে গোটা হাসপাতাল চত্বর স্যানিটাইজার করা হয়। এদিকে লক্ষ্য করা গেছে ধর্মনগর হাসপাতালের এমারজেন্সি বিভাগের সামনেই করোনা নমুনা পরিক্ষার সময় ব্যবহৃত পিপিই কিট মজুদ করে রাখা রয়েছে।যা করোনা সংক্রমণের জন্য খুবই ঝুঁকিপূর্ণ।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য

Close Menu