HeadLogo

ছড়ার জলে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে মারপিট উভয়পক্ষের অবস্থা গুরুতর - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
৩১ আগষ্ট ২০২০
সোমবার 

চুরাইবাড়ি প্রতিনিধিঃ উত্তর জেলার চুরাইবাড়ি থানাধীন পূর্ব ফুলবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের ৬ নং ওয়ার্ডের ছোট ছড়ার জলে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে চরম মারপিট সংঘটিত হয়। অভিযোগ পাল্টা অভিযোগ। দুই পক্ষের তরফ থেকে চুরাইবাড়ি থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ঘটনা স্থলে স্থানীয় থানার পুলিশ উপস্থিত হয়ে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। বর্তমানে দুই পক্ষের ৮ জন পুরুষ মহিলা ও শিশু গুরুতরভাবে আহত অবস্থায় জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।দুই পক্ষের অভিযোগ মূলে পূর্ব ফুলবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের ৬ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মজির উদ্দিন পিতা মশরফ আলীর জায়গার উপর দিয়ে একটি ছোট ছড়া অবস্থিত।


গত দুই দিন যাবৎ প্রবল বৃষ্টিপাতের দরুন উক্ত ছড়ায় মাছ ধরতে যায় পাশের বাড়ির আব্দুল নুরের ছেলে সুজেল উদ্দিন । তাদের অভিযোগ, আব্দুল নুরের ছেলে সুজেল হোসেনকে তাদের জায়গার উপর মাছ ধরতে বাধা দিলে আব্দুল নুর সহ তার আত্মীয় স্বজনরা অতর্কিতভাবে জায়গার মালিক মজির উদ্দিন (৫৩) স্ত্রী আয়াতুন নেছা ও ছেলে আব্বাস উদ্দীনকে দা লাঠি দিয়ে হামলা চালিয়ে গুরুতরভাবে আহত করে। 


অপরদিকে পাশের বাড়ির আব্দুল নুরের পরিবারের অভিযোগ, তাদের এগারো বছরের ছেলে সুজেল হোসেন আজ সকালে মজির উদ্দিনের জায়গার উপর ছোট ছড়াতে মাছ ধরতে গিয়েছিলে। আর সেই অপরাধে তাদের ছেলেকে মারধোর করতে শুরু করে জায়গার মালিক মজির উদ্দিন তার স্ত্রী ও পুত্র। ছেলের চিৎকার চেঁচামেচি শুনে তারা বেরিয়ে ঘটনাস্থলে আসলে তাদের উপর চড়াও হয় মজির উদ্দিন তার ছেলে ও স্ত্রী। তাদের দা ও লাঠির আঘাতে গুরুতর আহত হন আব্দুল নুর, নুরুল হক, রেশমা বেগম, শুক্কুরজান বিবি ও সুজেল হোসেন (১১) বলে তাদের অভিযোগ। 


ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে চুরাইবাড়ি থানার পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ গুরুতর আহত অবস্থায় উভয়পক্ষের ৮ জন পুরুষ মহিলা ও শিশুকে উদ্ধার করে কদমতলা গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সোমালি নাথ সকলের অবস্থা গুরুতর দেখে ধর্মনগর জেলা হাসপাতালে রেফার করেন। বর্তমানে উভয় পক্ষের সকলেই আশঙ্কা জনকভাবে জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অপরদিকে চিকিৎসক সোমালি নাথ জানান, উভয়পক্ষের মধ্যে মারপিটে সকলের অবস্থা প্রায় গুরুতর। দা লাঠি দিয়ে আঘাত করা হয়েছে বলে জানান চিকিৎসক।



কোন মন্তব্য নেই