আজও তৈরি করে চলছে মাটির প্রদীপ আলোর উৎসব দীপাবলি কে সামনে রেকে-Sabuj Tripura

 

সবুজ ত্রিপুরা

১৭  অক্টোবর

সোমবার

বক্সনগর প্রতিনিধিঃ বর্তমানে বাহারি রঙ্গিন চাকচিক্যতার বাজারে মিটমিট করে চলছে মাটির তৈরি প্রদীপের শিখা। বর্তমান ডিজিটাল যুগে বাহারি ইলেকট্রনিক্স লাইটের বাজারে মাটির তৈরি প্রদীপের আলো খানিকটা ফিকে পড়ে গেছে। 

বর্তমান সময়কালে আর তেমন চাহিদা নেই মাটির তৈরি প্রদীপের, তবুও মৃৎ শিল্পী'রা বুকে একরাশ আশা নিয়ে আজও তৈরি করে চলছে মাটির প্রদীপ।  বছরের একটাই দিন আলোর উৎসব দীপাবলি, মৃৎশিল্পীরা ব্যাবসা ভালো হবে এই আশা নিয়ে বিগত ১৫ দিন যাবত নাওয়া-খাওয়া ভুলে মাটির প্রদীপ তৈরিতে ব্যাস্ত। কিন্তু মন্দার বাজারে তাদের ব্যাবসা কতটুকু ভালো হবে সেটাই লাখ টাকার প্রশ্ন।  আলোর উৎসব দীপাবলি কে সামনে রেখে মৃৎশিল্পীরা কি পরিমান প্রদীপ তৈরি করছে তা দেখতে প্রতিবেদকের গন্তব্যস্থল ছিল তেলিয়ামুড়া মহকুমার তুইসিন্দ্রাইবাড়ি এলাকায়  মৃৎশিল্পী 

                         হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

খোকন রুদ্রপালের বাড়িতে। উনার বাড়িতে প্রবেশ করেই দেখা গেল উনি আপন মনে মাটির  প্রদীপ তৈরিতে ব্যাস্ত। কথা প্রসঙ্গে মৃৎশিল্পী খোকন রুদ্রপাল জানিয়েছেন, বর্তমানে চাইনিজ রঙ বাহারি লাইট, চাকচিক্য পূর্ণতার বাজারে  আগের তুলনায় অনেকাংশই কমে গেছে মাটির তৈরি প্রদীপের চাহিদা। আগে প্রায় চল্লিশ পঞ্চাশ হাজার প্রদীপ তৈরি করা হলেও বর্তমানে মাত্র পাঁচ 

থেকে ছয় হাজার মাটির প্রদীপ তৈরি করেন মৃৎশিল্পীরা। তাছাড়া দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির বাজারে বৃদ্ধি পেয়েছে প্রদীপ তৈরির মূল উপকরণ মাটি সহ প্রদীপ তৈরির আনসাঙ্গিক জিনিসপত্রের। তবে বর্তমান ডটকম যুগে বাহারি লাইট'কে সামনে থেকে টক্কর দিতে  প্রস্তুত মাটির তৈরি প্রদীপ। তবে মৃৎশিল্পীদের আশা মাটির প্রদীপের মসৃণ আলো আলোকিত করুক জগত সংসার, ঘুছে যাক সমস্ত দুঃখ কষ্টের গ্লানি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ

Close Menu