কদমতলার প্রমিলা বাহিনীর অভিযানে উদ্ধার প্রচুর দেশী মদ- Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
১ মে
শনিবার

চুরাইবাড়ি প্রতিনিধি:- প্রমিলা বাহিনীর তৎপরতায় ও পুলিশের সহযোগীতায় সরসপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ৩ নং ওয়ার্ডের সুবল চন্দের বাড়ি থেকে উদ্ধার প্রায় ২৩ লিটার দেশী মদ। গ্রামবাসীর তরফ থেকে বাড়ি মালিকের নামে থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়। ঘটনার বিবরণে প্রকাশ পায়, কদমতলা থানাধীন সরসপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসিন্দা রঞ্জন মোহন্তকে প্রচন্ড মদমত্ত অবস্থায় শুক্রবার বিকেল বেলা সরসপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ৩ নং ওয়ার্ডের রাস্তার পাশে অর্ধমৃত অবস্থায় দেখতে পান পথচারী গ্রামের প্রমিলা বাহিনীরা। 

তারপর প্রমিলা বাহিনীরা খবর নিয়ে জানতে পারেন ঐ এলাকার সুবল চন্দ্রের বাড়ি থেকে প্রচন্ড মদ্যপান করে রঞ্জন মোহন্ত বাড়ি যাওয়ার পথে রাস্তার ধারে অচৈতন্য হয়ে পড়ে রয়েছেন। পরে এলাকার প্রমিলা বাহিনীরা জড় হয়ে প্রতিবাদ শুরু করেন। খবর দেওয়া হয় স্থানীয় পঞ্চায়েত ও কদমতলা থানায়। পঞ্চায়েতের তরফ থেকে ঘটনাস্থলে কেউ না আসলেও কদমতলা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। কদমতলা থানার পুলিশ ও প্রমিলা বাহিনীর যৌথ উদ্যোগে সুবল চন্দের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে প্রায় ২৩ লিটার দেশী মদ উদ্ধার করা হয়।  


স্থানীয় জনগণ কদমতলা থানায় সুবল চন্দের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার খবর পেয়ে অভিযুক্ত দেশী মদ ব্যবসায়ী সুবল চন্দ বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। এদিকে কদমতলা থানার পুলিশ অচৈতন্য অবস্থায় রাস্তায় লুটিয়ে পড়ে থাকা রঞ্জন মোহন্তকে তার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন এবং উদ্ধারকৃত দেশী মদ কদমতলা থানায় নিয়ে আসেন। প্রমিলা বাহিনীদের অভিযোগ, সরসপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বেশকিছু বাড়িতে এভাবে দেশী মদ বিক্রি করা হয়। যার জন্য ধ্বংসের পথে চলে যাচ্ছে যুবসমাজ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য

Close Menu