HeadLogo

ধর্মনগর সংস্কৃতি সংসদের প্রথম সম্মেলন ও কার্যকরী কমিটি গঠন - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা 
০৬ জানুয়ারি ২০২০  
বুধবার

ধর্মনগর প্রতিনিধিঃ বাংলা সংস্কৃতির বিভিন্ন ধারা, উপধারা, আঞ্চলিক সংস্কৃতি ইত্যাদির পরিচর্যা, পরিচর্চা, বিকাশ ,বিনিময়, গবেষণা ইত্যাদি লক্ষ্যকে পাথেয় করে পথ চলতে শুরু করলো' বাংলা সংস্কৃতি বলয়ের অঙ্গ ধর্মনগর সাংস্কৃতিক সংসদ। পাশাপাশি অন্যান্য ভাষাভাষী মানুষদের সংস্কৃতিকে সম্মান জানিয়ে বাংলা সংস্কৃতির উৎকর্ষ বৃদ্ধি করাই হচ্ছে এই 'বাংলা সংস্কৃতি বলয়'-র মূল লক্ষ্য। এই বাংলা সংস্কৃতি  বলয়ের সাংস্কৃতিক পরিধি রয়েছে দেশ-বিদেশের বাঙালি সমাজে। রবিবার ধর্মনগরের অর্ধেন্দু ভট্টাচার্য স্মৃতি ভবনে একটি সম্মেলনের মধ্য দিয়ে  এই 'বাংলা সংস্কৃতি বলয়'-র ধর্মনগর সংসদের কার্যকরী কমিটি গঠন করা হলো। ধর্মনগর সংস্কৃতি সংসদের প্রথম সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরা সংস্কৃতি সংসদ এর কর্ণধার সেবক ভট্টাচার্য সাথে উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরা সংস্কৃতি সংসদ আহবায়ক দেবাশীষ এন্দ ও ছিলেন রাজ্যের বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব দেবাশীষ ভট্টাচার্য্য। 

রবিবার ধর্মনগরে আয়োজিত ধর্মনগর সংস্কৃতি সংসদের প্রথম সম্মেলন এর উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য বিধানসভার উপাধ্যক্ষ তথা যাত্রা শিল্পী  বিশ্ববন্ধু সেন মহোদয়। সঙ্গে ছিলেন উত্তর ত্রিপুরা জেলার সাংস্কৃতিক উপ কমিটির চেয়ারম্যান দিপাল দাস। এই সম্মেলনের মঞ্চে আলোচনা করতে গিয়ে রাজ্য বিধানসভার উপাধ্যক্ষ বিশ্ববন্ধু সেন এই বাংলা সংস্কৃতি বলয়ের লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্যকে সাধুবাদ জানান।


এই বাংলা সংস্কৃতি বলয়ের আগামীদিনের লক্ষ্য উদ্দেশ্য নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন সেবক ভট্টাচার্য। রবিবার এই সম্মেলনে গোটা ধর্মনগর মহকুমার বিভিন্ন কবি,সাহিত্যিক ,লেখক, শিল্পী সহ বিভিন্ন অংশের সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বরা উপস্থিত ছিলেন।উপস্থিত সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বদের মধ্যে থেকে মোট ২৩ জনকে নিয়ে ধর্মনগর সংস্কৃতি সংসদের কার্যকরী কমিটি গঠন করা হয়। এতে সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয় চিত্রশিল্পী বাপ্পা চক্রবর্তী কে। 


সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হয় নাট্যব্যক্তিত্ব স্বরূপ  ঘোষ সান কে এবং কোষাধ্যক্ষের দায়িত্বে রয়েছে রাজ্যের বিশিষ্ট নৃত্য শিল্পী পর্ণশ্রী ঘোষকে।সাংগঠনিক সম্পাদক মনিদ্বীপ দাস সুমন ও দপ্তর সম্পাদক অনির্বাণ চক্রবর্তীকে নিযুক্ত করা হয়। সম্মেলন শেষে ধর্মনগরের পুরাতন টাউন হল তথা অর্ধেন্দু আচার্য স্মৃতি ভবনের মঞ্চে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রত্যেকের মধ্যে বেশ আনন্দ উৎসাহ লক্ষ্য করা যায়।

কোন মন্তব্য নেই