HeadLogo

আগর ব্যবসায়ীদের সাথে বৈঠকে মিলিত হন আধিকারীকরা, ১২ টি লাইসেন্স প্রদানের আশ্বাস প্রদান - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা 
৩০ ডিসেম্বর ২০২০  
বুধবার

চুরাইবাড়ি প্রতিনিধিঃ বহু মূল্যবান আগর গাছ থেকে আগামী সাত বছরে দুই হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য হবে। সোমবার উত্তর জেলা সফরে এসে এই বক্তব্য রেখে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের চব্বিশ ঘন্টার ভিতরেই বন দপ্তরের স্টেইট ডাইরেক্টর সহ ডিএফওরা উত্তর জেলার কদমতলায় আসেন।কদমতলা ব্লকের ব্লক আধিকারিক কমল দেববর্মার অফিস রুমে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের এক প্রতিনিধি দলের সাথে বৈঠকে মিলিত হন আধিকারীকরা। 

বৈঠকে পৌরহিত্য করেন কদমতলা ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির চেয়ারম্যান সুব্রত দেব মহোদয়। বৈঠকে স্থানীয় আগর ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে আগর ব্যবসা সম্বলিত বিভিন্ন অভিযোগ শুনেন। আগরের ১ জন মাত্র লাইসেন্স ধারী ব্যবসায়ী রয়েছেন রাজ্যে। আগামী কিছু দিনের মধ্যে ১২ টি লাইসেন্স প্রদান করা হবে বলে আশ্বাস প্রদান করেন উপস্থিত আধিকারীকগন। তাছাড়া ট্রি রেজিষ্ট্রেশন, কাটিং পারমিশন সহ বিভিন্ন অসুবিধা গুলি তুলে ধরলে তা দ্রুত নিরসন করা হবে বলে জানান। 


ত্রিপুরার আগরকে বাণিজ্যি মুখী করতে মুখ্যমন্ত্রী উদ্যোগ গ্রহন করছেন কিন্তু দপ্তরের একাংশ আধিকারিক সেই প্রক্রিয়ায় জটিলতার সৃষ্টি করছেন। মুলত আগর উত্তর জেলায় বেশী পাওয়া যায়। কিন্তু শুধু মাত্র বনদপ্তরের ঢিলেমির কারণে ত্রিপুরার অর্থনিতিতে যুগান্ত স্থাপনকারী উদ্যোগ মার খাচ্ছে। 


অথচ কদমতলায় আন্তর্জাতিক মানের আগরের বাজার তৈরী হবে। ত্রিপুরার আগর বিদেশ যাবে এটা ছিলো ভোট প্রতিশ্রুতি। মুখ্যমন্ত্রী না ভুললেও দপ্তর আগরকে নিয়ে সঠিক দিশায় কাজ করছে না।এখন দেখার বিষয় রাজ্যে মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্ন কতটুকু বাস্তবায়ন করতে সফল হন বনদপ্তর আধিকারিক গন।

   

কোন মন্তব্য নেই