HeadLogo

সাত সকালে ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার তেলিয়ামুড়ায় - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
০৫ অক্টোবর ২০২০ 
সোমবার 

তেলিয়ামুড়া প্রতিনিধিঃ সোমবার সাতসকালে এক ব্যক্তির ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। ঘটনা তেলিয়ামুড়া থানাধীন হাওয়াই বাড়ির সিএনজি স্টেশনের পাশে। মৃত ব্যক্তির নাম রতন পাল বয়স আনুমানিক প্রায় ৩৭ বছর। বাইশঘড়িয়া এলাকায় মৃত ব্যক্তির বাড়ি, পেশায় সে গাড়ির চালক। পরিবার সূত্রে জানা যায়, মৃত রতন পাল নিজের টি আর ০১ আর ১৮৪১ নম্বরের বোলেরো পিকআপ গাড়ি নিয়ে আগরতলা গিয়েছিল রবিবার কোন এক সময়। এরপর আর বাড়িতে ফেরেনি। 


ফলে মৃত ব্যক্তির বড় ভাই ও পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি করে রাতভর, আজ সকলে ছোট ভাই রতন কে খুঁজতে খুঁজতে বড় ভাই আসাম- আগরতলা জাতীয় সড়কের পাশে সিএনজি স্টেশন লাগোয়া লেবু বাগানে এসে তার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পায়। খবর দেওয়া হয় তেলিয়ামুড়া থানায়, ঘটনাস্থলে ছুটে আসে তেলিয়ামুড়া থানার পুলিশ। পুলিশ ছুটে গিয়ে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে তেলিয়ামুড়া মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসে ময়নাতদন্তের জন্য। 


সেখানে ময়নাতদন্তের পর মৃত দেহটি পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হবে। পুলিশ একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা নিয়ে ঘটনার তদন্ত করছে। অন্যদিকে আরো একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসছে 

তার মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে। কারণ রবিবার সন্ধ্যা রাতে চম্পকনগর থানাধীন চন্দ্রসাধু পাড়া এলাকায় এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মহিলাকে বড়মুড়া পাহাড়ের জাতীয় সড়কে এক বুলেরো পিকআপ গাড়ির চালক ছুরিকাঘাত করেছিল সেই গাড়ির নম্বরও ছিল মৃত রতন পালের গাড়ির নম্বর। 


কারণ ঐ মহিলাকে নিয়ে যখন হাসপাতালে এসেছিল প্রত্যক্ষদর্শীরা তখন ঐ গাড়ির নম্বরটির চালক ঐ মহিলাকে ছুরিকাঘাত করেছে বলে জানিয়েছিল সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে। তবে এর মৃত্যুর পেছনে কী রহস্য লুকিয়ে আছে সেটা একমাত্র পুলিশী তদন্তে বেরিয়ে আসতে পারে। তবে পুলিশ একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। এই ব্যক্তির মৃত্যু ঘিরে একদিকে যেমন সুখের ছায়া নেমে এসেছে গোটা এলাকায় অন্যদিকে চাঞ্চল্য ও ছড়িয়ে আছে।

কোন মন্তব্য নেই