HeadLogo

দিল্লির নির্ভয়া কাণ্ডের পুনরাবৃত্তি গণধর্ষণের শিকার এক নাবালিকা - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
২২ জুলাই ২০২০
বুধবার        

তেলিয়ামুড়া প্রতিনিধিঃ দিল্লির নির্ভয়া কাণ্ডের পুনরাবৃত্তি ঘটল ত্রিপুরা রাজ্যের তেলিয়ামুড়া থানা এলাকায়। গণধর্ষণের শিকার এক  নাবালিকা (১৭) ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার আনুমানিক সাত (৭)টা নাগাদ। ঘটনার বিবরণে জানা যায় মুঙ্গিয়াকামি  থানাধীন পানবাড়ি এলাকার কোচরাই পাড়ার বাসিন্দা ১৭বছরের নাবালিকার সাথে চাকমাঘাট এলাকার বাসিন্দা রামপ্রসাদ সরকারের ছেলে রূপেস সরকারের সাথে এই নাবালিকার প্রণয় ঘটিত সম্পর্ক ছিল। তাই মঙ্গলবার বিকেলে রূপেস সরকার (২০) নাবালিকা মেয়েটিকে চাকমাঘাট স্থিত একটি ইকো পার্কে নিয়ে আসে। তবে কিছুক্ষণ পর নাবালিকাকে বাড়িতে ফেরত পাঠাতে রুপেস চাকমাঘাট স্থিত অটো স্ট্যান্ডে নিয়ে আসে। 
এই সময়ে রূপেসের  পরিচিত কাসিম মিঞা (৩৫), জাহেদ মিঞা(২২) দুইজনে গাড়ি নিয়ে অটো স্ট্যান্ডে এলে ঐ নাবালিকাকে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার জন্য রুপেশ তাদের অনুরোধ জানায়। তার পর কাসিম নাবালিকাকে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার জন্য তাদের একটি গাড়িতে তুলে।পরে জাহেদ মিঞা ও কাশেম মিঞার সাথে আরো  তিন যুবক আহমেদ আলি (২৩), গনি মিঞা (২৪), সহ অপর এক যুবক তাদের সঙ্গী হয়। পরবর্তীতে নাবালিকা মেয়েটিকে নিয়ে এই পাঁচজন দুটি নম্বর বিহীন গাড়ির মাধ্যমে মেয়েটিকে বাড়ির উদ্দেশ্যে না নিয়ে  তাকে তেলিয়ামুড়া থানাধীন খাসিয়া মঙ্গলের  দিকে একটি জঙ্গলে নিয়ে যায়। 

জানা যায় গাড়ির মধ্যেই সংঘবদ্ধভাবে পাঁচজন মানুষ রূপী জানোয়ার জোর করে নাবালিকা মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। এই ঘটনার পর  তারা মেয়েটিকে নিয়ে তেলিয়ামুড়া নেতাজি নগর স্থিত ইউবিআই  ব্যাংক সংলগ্ন স্থানে রাত আট নাগাদ ফেলে  যায়। পড়ে ধর্ষিতা নাবালিকা তার প্রেমিক রুপেসের মোবাইলে ফোন করে সমস্ত ঘটনা জানায় এবং তাকে  আসতে বলে। সাথে সাথেই প্রেমিক রুপেস নেতাজি নগর ইউবিআই ব্যাংক সংলগ্ন স্থানে এসে বাইকে করে নাবালিকা মেয়েটিকে তার বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নিলে নাবালিকা মেয়েটি  বাড়িতে যেতে অস্বীকার করে তেলিয়ামুড়া থানায় আসে এবং ঘটনার বিবরণ ও অভিযুক্তদের নামে অভিযোগ করে। 

পুলিশ অভিযোগ পেয়ে  রাতেই তেলিয়ামুড়া মহকুমার এসডিপিও ভি জগদীশ্বর রেড্ডি, ও ওসি স্বপন দেববর্মা নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল চাকমাঘাট এবং তুই মধু এলাকায় অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালায়। তবে মূল অভিযুক্তরা পলাতক। তাছাড়া পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নাবালিকার প্রেমিক রূপেস  সরকারকে তেলিয়ামুড়া থানায় নিয়ে আসে।


কোন মন্তব্য নেই