Ad Code

Responsive Advertisement

পায়ে হেটে ধর্মনগর থেকে পাঞ্জাব যাবার পথে পুলিশের হাতে আটক দুই ব্যক্তি



সবুজ ত্রিপুরা
১৮ মে ২০২০

চুরাইবাড়ি প্রতিনিধি: করোনা ভাইরা‌সের প্রকোপে প‌ড়ে চ‌লিত চতুর্থ পর্য্যা‌য়ের লকডাউনে অবশেষে নিজ বাড়ির টানে উত্তর জেলার ধর্মনগর থে‌কে প্রশাস‌নের চো‌খে ধূ‌লো দি‌য়ে রেল সড়ক ধরে পায়ে হেঁটে পাঞ্জাব যাবার উদ্দে‌শ্যে অসমে প্রবেশ করে পাথারকান্দির সোনাখিরা পুলিশের হাতে ধরা পড়ল দুই ব্যক্তি।


ঘটনাটি ঘটেছে আজ দুপুর নাগাদ। পরে তাদেরকে স্থানীয় রেল‌ষ্টেশন থে‌কে আটক ক‌রে সোনাখিরা পু‌লিশ চেকপোষ্টের ইনচার্জ সুখেস দাস নিজ হেফাজতে নিয়ে আজই তা‌দের‌কে পাথারকান্দি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পাঠিয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর চিকিৎসকদের পরামর্শে চৌদ্দ দিনের জন্য হোম কোয়ারেন্টাইনের রাখা হয়েছে। পু‌লি‌শি জেরায় ধৃতরা জানায় যে তারা ধর্মনগ‌রে ফ্লাইং ব্যবসা করতেন। বর্তমা‌নে তা‌দের কারবা‌রে ভাঁ‌টির টান পড়ায় তারা প‌রি‌স্থি‌তির শিকার হ‌য়ে পা‌য়ে হেঁ‌টে প্রথ‌মে ক‌রিমগঞ্জ ও প‌রে শিলচর যাবার কথা ছিল। এদের মধ্যে রয়েছেন বিক্রম‌জিৎ সিং(৩৫)ও গুরুলাল সিং(৪৮)। উভ‌য়ের বা‌ড়ি পাঞ্জা‌বের গুরুদাসপ‌ুর গ্রা‌মে। 

এ‌দি‌কে চ‌লিত ক‌রোনাকা‌লে রাজ্য থে‌কে পা‌লি‌য়ে যাওয়া বি‌ভিন্ন ব্য‌ক্তি পাথারকা‌ন্দি‌তে আট‌কের ঘটনায় স্থানীয় স‌চেতন মহ‌লে নানা প্রশ্ন চিহ্ন দেখা দি‌য়ে‌ছে। প্রশ্ন দেখা দিয়েছে ১৮ কিমি দীর্ঘ অসম সীমান্তের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে। যদি এভাবে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে রাজ্য থেকে পার্শ্ববর্তী রাজ্য অসমে মানুষ অবাধে যেতে পারে তাহলে বহি রাজ্য থেকে অবৈধভাবে প্রবেশকারীরা যে রাজ্যে প্রবেশ করছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। ওরা কি ভা‌বে অসম ত্রিপুরা রাজ্য সীমা‌ন্তের কড়া প্রহরা এড়ি‌য়ে অস‌মে প্র‌বেশ কর‌ছে। এ নি‌য়ে স্বাভা‌বিক ভা‌বে স্থানীয় জনম‌নে একরাশ ক‌রোনা আতঙ্ক সহ প্রশাস‌নের ভু‌মিকা নি‌য়ে প্রশ্ন উঠ‌তে শুরু ক‌রে‌ছে। বিভিন্ন সময়ে কদমতলা থানার ভুমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। বিষয়‌টি নি‌য়ে প্রশাস‌নের উর্দ্ধতন মহল‌কে আরও ক‌ঠোর হবার পরামর্শ দি‌য়ে‌ছেন উভয় সীমান্তের স্থানীয় জনগণ।






ছবিঃ কিশোর রঞ্জন হোড় 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য

Close Menu