HeadLogo

দুর্ঘটনায় প্রাণ হারাল শিশু শ্রমিক : সরকারের শিশু শ্রম আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি চালকল মালিকের

নিহত শিশু শ্রমিকের মৃতদেহ ধর্মনগর জেলা হাসপাতালে (বাঁয়ে)। অগ্নিপাশার চালকলটি যেখানে দুর্ঘটনা ঘটেছে(ডানে)। ছবি: রমাকান্ত দেবনাথ।


সবুজ ত্রিপুরা, পানিসাগর প্রতিনিধি, ২১ জানুয়ারী : সরকারের শিশু শ্রম বিষয়ক আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে নিজ ক্ষমতাবলে শিশু শ্রমিককে দিয়ে কাজ করিয়ে তার প্রাণ কেড়ে নিল ক্ষমতাবান এক চালকলের মালিক ।
ঘটনার বিবরণে প্রকাশ, উত্তর জেলাধীন পানিসাগর মহকুমা অগ্নিপাশা গ্রাম পঞ্চায়েতের 5 নং ওয়ার্ডের চালকল ব্যবসায়ী শ্রী কৃপাময় নাথ গ্রামেই আসাম-আগরতলা জাতীয় সড়কের পাশেই ৭/৮ মাস পূর্বে তার চালকলে দৈনিক কাজ করার জন্য ঊনকোটি জেলার পেচারথলের নবীনছড়া নিবাসী ১২ বছর বয়সী শিশু ধর্মেন্দ্র চাকমাকে নিযুক্ত করেন। গতকাল সোমবার সকালবেলা প্রতিদিনের মতো মেশিন চালানোর সময় নিজের অজান্তেই ধর্মেন্দ্র চাকমার গলায় মাফলার জাতীয় কাপড়টি মেশিনের সাথে আটকে যায় এবং প্যাঁচ খেয়ে তার শ্বাসরুদ্ধ হতে থাকে। সাথে সাথে উপস্থিত খদ্দেররা মেশিনটি বন্ধ করার চেষ্টা করেন এবং কলের মালিককে খবর দেন। এদিকে গুরুতর আহত ধর্মেন্দ্রকে স্থানীয় পানিসাগর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ধর্মেন্দ্রের অবস্থা সঙ্গীন দেখায় অতি সত্ত্বর ধর্মনগর জেলা হাসপাতাল রেফার করেন। দুভার্গ্যবশতঃ, যাওয়ার পথেই শিশু শ্রমিক ধর্মেন্দ্র চাকমা মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।



ঘটনার খবর পেয়ে ধর্মনগর থানার কর্মকর্তাগণ, সংবাদ প্রতিনিধি সহ ত্রিপুরার চাইল্ড অর্গানাইজেশনের কর্মকর্তাগণ জেলা হাসপাতালে গিয়ে বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্ত করতে মাঠে নামেন। পানিসাগর সহ গোটা পেচারতল এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। এলাকার শুভবুদ্ধি সম্পন্ন নাগরিক প্রশ্ন তুলছেন, শিশু শ্রমিকের আইন এত কঠোর হওয়ার পরও  কিভাবে এক অংশ ক্ষমতাবান ক্ষুদ্র থেকে বলিষ্ঠ ব্যবসায়ীরা সরকারের আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে তাদের ক্ষমতাবলে শিশু শ্রমিকদের কাজে লাগিয়ে নির্ভয়ে ব্যবসা করে যাচ্ছেন? এই ঘটনা থেকে প্রমাণিত হয় যে, আইন কড়া হওয়া সত্ত্বেও প্রকৃতপক্ষে কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। আজকের এই শিশু শ্রমিকের মৃত্যুর পর স্থানীয় প্রশাসন এবং চাইল্ড অর্গানাইজেশনের মত সামাজিক সংস্থা কি পদক্ষেপ নেয় সেটাই দেখার বিষয়।

 





কোন মন্তব্য নেই