HeadLogo

"মনমে বাপু" : কদমতলায় গান্ধী সংকল্প যাত্রা


সবুজ ত্রিপুরা, চুড়াইবাড়ি প্রতিনিধি, ১৭ অক্টোবর : উত্তর জেলার ৫৪-কদমতলা-কুর্তি বিধানসভা কেন্দ্রে আজ অনুষ্ঠিত হয় গান্ধী সংকল্প যাত্রা। "মনমে বাপু" স্লোগানকে সামনে রেখে রাজ্যের প্রবেশদ্বার চুরাইবাড়ি থেকে ভারতীয় জনতা পার্টির ত্রিপুরা প্রদেশের এই গান্ধী সংকল্প যাত্রা শুরু করা হয়। এই সংকল্প যাত্রায় শামিল হন রাজ্যের মাননীয় উপমুখ্যমন্ত্রী শ্রী যীষ্ণু দেববর্মণ, পূর্ব ত্রিপুরার মাননীয় সাংসদ শ্রী রেবতী কুমার ত্রিপুরা, যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি শ্রী টিংকু রায়, রাজ্য বিধানসভার মাননীয় উপাধ্যক্ষ শ্রী বিশ্ববন্ধু সেন, উত্তর জেলার জেলাধিপতি শ্রী ভবতোষ দাস সহ অন্যান্য বিশিষ্টজনেরা।
কুর্তি বিধানসভা কেন্দ্রে রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী গান্ধী সংকল্প যাত্রার সূচনা করছেন। ছবি : কিশোররঞ্জন হোর।
উপমুখ্যমন্ত্রী শ্রী যীষ্ণু দেববর্মণ ফিতা কেটে আজকের গান্ধী সংকল্প পদযাত্রার শুভারম্ভ করেন। স্বচ্ছ ও প্লাস্টিক মুক্ত ভারত গড়ার যে ডাক দেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী  দিয়েছেন, সেই ডাকে সাড়া দিয়ে গোটা রাজ্যব্যাপী এই যাত্রার আয়োজন করা হয়েছে। স্বচ্ছতা আনতে এবং জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর সংকল্পকে বাস্তবায়িত করাই এই অভিযানের মূল লক্ষ্য।

উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানে উপস্থিত সাংবাদিকরা  মাননীয় উপমুখ্যমন্ত্রীকে সাম্প্রতিককালের ৬০০ কোটি টাকার পূর্ত দপ্তরের ঘটোলার বিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, আইন আইনের পথে চলবে, এর থেকে কেউ রেহাই পাবে না। পুলিশ প্রাক্তন পূর্তমন্ত্রী বাদল চৌধুরীর খোঁজ চালাচ্ছে। এ বিষয়ে তিনি আর কোনও কথা বলতে চান নি। অপরদিকে সাংসদ শ্রী রেবতী ত্রিপুরা তাঁর প্রতিক্রিয়া জানান, প্রাক্তন মন্ত্রী  নিজেই দুর্নীতি করেই ফেঁসে গেছেন। সুতরাং, আইনের হাত থেকে তিনি বাচতে পারবেন না।

আজকের এই পদযাত্রা চুড়াইবাড়ি রেলওয়ে সংলগ্ন এলাকা থেকে আরম্ভ হয়ে কদমতলার বড়গোলে গিয়ে ‌সমাপ্ত হয়। কিন্তু এই পদযাত্রায় দলীয় কর্মীদের উপস্থিতি সংখ্যা ছিল নেহাতই কম।




কোন মন্তব্য নেই