HeadLogo

ফটিকরায়ে নিশিকুটুম্বদের হানা : পুলিশের ভূমিকায় উঠছে প্রশ্নচিহ্ন


সবুজ ত্রিপুরা, চুড়াইবাড়ি প্রতিনিধি, ১৯ জুন : ফের নিশি কুটুম্বের হানা ফটিকরায়েইদানিং কালে ঊনকোটি জেলার ফটিকরায়ে চোরের তাণ্ডব ক্রমশ বেড়েই চলেছেপ্রতি মাসের মধ্যে  দু একবার করে ফটিকরায় এলাকার কোন না কোন দোকানে রাতের আধারে জনশূন্যতার সুযোগে হানা দিচ্ছে চোরের দল, তাও আবার অধিকাংশ ঘটনাই ঘটছে ফটিকরায় থানার নাকের ডগায়

রাতের আঁধারে পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার সুযোগকে কাজে লাগিয়েই হাত সাফাই করে চলেছে চোরের দল বলে অভিযোগ এক কথায়, ফটিকরায় থানার পুলিশকে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ জানিয়ে চুরি করে চলেছে চোরের দলফটিকরায় থানা থেকে ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে রাতের বেলা ফের একটি মুদি দোকানে হানা দেয় নিশিকুটুম্বের দলদোকানের সামনের দরজা ভেঙে দোকানে প্রবেশ করে দোকানে থাকা বিভিন্ন সামগ্রী চুরি করে পালিয়ে যায় চোরেরা।

দোকানের মালিক নারায় মজুমদার জানান, সকালে দোকানে এসে তিনি ঘটনাটি প্রত্যক্ষ করেনতিনি জানিয়েছেন সব মিলিয়ে প্রায় ২০,০০০-২৫,০০০ টাকার মতো নিয়ে পালিয়েছে চোরের দলঘটনাস্থল থেকে ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে রয়েছে ফটিকরায় থানা, কিন্তু তা সত্ত্বেও কিভাবে চোরেরা এই দুঃসাহস দেখালো তা নিয়ে ফটিকরায় থানার পুলিশের ভূমিকায় দোকানের মালিক অভিযোগ তুললেন তিনি বললেন, পুলি যদি রাতে সঠিকভাবে টহল দিত, তাহলে হয়তো এই ঘটনাগুলির হ্রাস টানা যেতফটিকরায় এলাকায় চোরের তাণ্ডব ঠেকাতে তৎপর হবে কি ফটিকরায় থানার পুলিশ? নাকি রাতে থানায় বসে বসেই তারা তাদের কর্তব্য সারবে? জনমনে উঠছে প্রশ্ন


কোন মন্তব্য নেই