ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস ১২ ঘন্টার বন্ধের প্রভাব দেখা যায় নি তেলিয়ামুড়া মহকুমায় - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা 
২০ জানুয়ারি ২০২০  
বুধবার

তেলিয়ামুড়া প্রতিনিধিঃ- বিশালগড় পিসিসি সভাপতি পীযূষ কান্তি বিশ্বাসের উপর অতর্কিত আক্রমণের প্রতিবাদ জানিয়ে গোটা রাজ্যে ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস ১২ ঘন্টার বন্ধ ডেকেছিল সোমবার। এই বন্ধ কে কেন্দ্র করে সোমবার তেলিয়ামুড়া মহকুমায় কোন প্রভাব পরল না। বিভিন্ন দপ্তরের অফিস,আদালত, স্কুল- কলেজ, সহ তেলিয়ামুড়া বাজার এবং তেলিয়ামুড়া যনজীবন ছিল স্বাভাবিক।এই দিন সকাল দশ (১০)টা নাগাদ  তেলিয়ামুড়া শহরের প্রাণকেন্দ্র বলে পরিচিত স্থানীয় অম্পি চৌমনী তে প্রদেশ কংগ্রেসের তেলিয়ামুড়া কর্মী সমর্থকরা বন্ধের সমর্থনে পিকেটিং করে।

অপরদিকে বন্ধের বিরোধিতা করে বিজেপি তেলিয়ামুড়া যুব মোর্চার কর্মী সমর্থকরা পাল্টা পিকেটিং করে। এরই মধ্যে কংগ্রেস এবং বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা মুখোমুখি হয়ে পড়ে স্থানীয় অম্পি চৌমুহনীতে। যদিও পুলিশের চেষ্টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এদিকে কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকদের গ্রেপ্তার করে নিয়ে যাওয়া হয় তেলিয়ামুড়া টাউন হল তথা চিত্রাঙ্গদা কলাকেন্দ্র মাঠে। সেখানে কড়া পুলিশি প্রহরায় রাখা হয় কংগ্রেস কর্মী সমর্থকদের। এদিকে তেলিয়ামুড়া ডাকঘর অফিস টি কোনো এক অজ্ঞাত কারণে ১০:৩০ মিঃ পর্যন্ত অফিস টি খোলা হয়নি। 


পরে বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা চেষ্টা চালিয়ে ডাকঘর খোলা হয় এবং স্বাভাবিক কাজকর্ম শুরু হয়।কংগ্রেস কর্মী সমর্থকদের টাউন হলের মাঠে রাখা হলে সেখানে ঘটে আরেক বিপত্তি। ককবরক দিবস উপলক্ষে অখিল ভারত বিদ্যার্থী পরিষদ তেলিয়ামুড়া নগর শাখার উদ্যোগে অনুষ্ঠানসূচি নির্ধারিত ছিল চিত্রাঙ্গদা কলাকেন্দ্র তথা টাউন হলে। 


সেই মোতাবেক অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের কর্মী সমর্থকরা টাউন হলের মাঠে প্রবেশ করার মুখে কোনো এক অজ্ঞাত কারণে কংগ্রেস কর্মী সমর্থকদের সাথে বিদ্যার্থী পরিষদের কর্মী-সমর্থদের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় তেলিয়ামুড়া মহাকুমা পুলিশ আধিকারিক ভি. জগদীশ্বর রেড্ডি সহ বিশাল সংখ্যক টিএস আর ও সিআরপিএফ বাহিনী। দীর্ঘক্ষণ চেষ্টার পর পরিস্থিতি আয়ত্তে আসে।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য

Close Menu