HeadLogo

ছয় নরপশুর দ্বারা, ত্রিপুরার ২ যুবতী গণধর্ষণের শিকার পার্শ্ববর্তী রাজ্য অসমের নিলাম বাজারে - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
১৭ নভেম্বর ২০২০  
মঙ্গলবার   

চুরাইবাড়ি প্রতিনিধিঃ মাতৃ আরাধনার রাতে চুরাইবাড়ি থানার শনিছড়া এলাকার মাতৃজাতির ২ যুবতী গণধর্ষণের শিকার পার্শ্ববর্তী রাজ্য অসমের করিমগঞ্জ জেলার নিলাম বাজারে। ঘটনার বিবরণে প্রকাশ, দীপাবলি তথা কালী পূজার রাতে চুড়াইবাড়ি থানাধীন শনিছড়া এলাকার ২ যুবতী গণধর্ষণের শিকার পার্শ্ববর্তী রাজ্য অসমে। ঘটনাটি সংঘটিত হয়েছে অসমের করিমগঞ্জ জেলার নিলাম বাজার এলাকায়। গোটা দেশ যখন মাতৃবন্দনায় মুখরিত সেই সময় রাজ্যের দুই যুবতী অসমে গণধর্ষণে তীব্র উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। অসম পুলিশের বক্তব্য অনুযায়ী গত শুক্রবার উত্তর জেলার চুড়াইবাড়ি থানা এলাকার শনিছড়ার ২ যুবতী অসমের শিলচর মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত নিজের মাকে দেখতে যায়। 


মাকে দেখার পর শিলচর মেডিকেল কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার উদ্দেশ্যে সন্ধ্যা নাগাদ একটি অলটো গাড়ি ভাড়া করে ত্রিপুরার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয় রাজ্যের দুই যুবতী। মাঝ রাস্তায় অলটো গাড়ির চালক কুমতলব করে গাড়িটি ভুল রাস্তায় নিয়ে গিয়ে রাত্রি ১ টার সময় করিমগঞ্জ জেলার নিলাম বাজার এলাকার একটি নির্মীয়মান ঘরে দুই যুবতীকে বলপূর্বক বন্দি করে অলটো গাড়ি চালক সহ আরো পাঁচ লম্পট যুবক। তারপর দুই যুবতীর উপর গণধর্ষণ চালায় ৫ যুবক ও গাড়ির চালক। 


শনিবার বিকেল বেলা ভুক্তভোগী দুই যুবতী সুযোগ বুঝে ঘটনাস্থল থেকে পলায়ন করে স্থানীয় অসমের নিলাম বাজার থানায় একটি গণ ধর্ষণের মামলা রুজু করে। গণ ধর্ষণের মামলা ও ধর্ষিতা দুই যুবতীর জবানবন্দির উপর ভিত্তি করে অসম পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যান। ঘটনাস্থলে অসম পুলিশ সরজমিনে তদন্ত চালিয়ে বহু সামগ্রী জব্দ করে।সাথে আটক করে গণধর্ষণ কাণ্ডের সাথে জড়িত এক নরপিচাশকে। ধৃত যুবক স্থানীয় নিলাম বাজারের আব্দুল আহাদ। তাছাড়া  নিলাম বাজার থানায় ছুটে আসেন করিমগঞ্জ জেলার এসপি সহ উচ্চপদস্থ পুলিশ আধিকারিক। 


উনারা নিলাম বাজার থানায় এসে ধৃত আব্দুল আহাদকে জিজ্ঞাসাবাদ চালান। গনধর্ষন কান্ডে জড়িত গাড়িচালক সহ বাকি  পাঁচ যুবক বর্তমানে পলাতক। মাতৃ আরাধনা রাতে ২ মাতৃজাতির সাথে এধরনের নিকৃষ্ট ঘটনা ঘটে যাওয়াতে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে নানা মহলে। পাশাপাশি ঘটনাটি নিয়ে অসম রাজ্যের রাজ্য বিজেপির সদস্যা শিপ্রা গুন তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়ে ২৪ ঘন্টার ভেতর বাকিদের গ্রেপ্তার করে কঠোর শাস্তি প্রদানের দাবি জানান।

কোন মন্তব্য নেই