HeadLogo

আইপিএফটির ২৪ ঘন্টার ধর্মঘটে আবারো উঠলো ত্রিপরাল্যান্ডের দাবি - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
১০ জুলাই ২০২০
শুক্রবার   

ধর্মনগর  প্রতিনিধিঃ রাজ্যের  একদিকে করোনা  পরিস্থিতিতে আতঙ্কের ছাপ বয়ে চলেছে, আবার অপরদিকে আসন্ন এডিসি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজ্যের পাহাড় এলাকা সগরম হয়ে উঠছে। সম্প্রতি এডিসির সদর খুমুলুঙ এর ডুকুমালিতে বিজেপি কার্যালয়ে অগ্নিসংযোগ ঘটনায় পুলিশ আইপিএফটি দলের কর্মী প্রদীপ দেববর্মাকে গ্রেফতার করেছে। 

ফলে এই  প্রদীপ দেববর্মার  মুক্তির দাবিতে  খুমুলুঙ বৃহস্পতিবার সকাল ছয়টা থেকে ২৪ ঘন্টা বনধ পালন করলো আইপিএফটি দল। উক্ত এই বনধে  গোটা খুমুলুঙ -এর এডিসি এলাকার পরিস্থিতি ছিল থমথমে। তাছাড়া অফিস বাজার হাট দোকান পাট সবকিছুই বন্ধ ছিল। পরিস্থিতি সামলে রাখতে গোটা খুমুলুঙ ছিল কঠোর নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা। তবে দলের পক্ষ থেকে আইপিএফটি বিধায়ক বিশ্বকেতু দেববর্মা জানান বিগত ২৫ বছরের বাম সরকারের আমলের মতোই রাজ্যের এডিসি এলাকার অন্যান্য আঞ্চলিক দলগুলিকে দুর্বল করার প্রয়াস চালাচ্ছে বিজেপি।  

তিনি আরও বলেন আচমকাই আইপিএফটি -কে বাদ দিয়ে এডিসি দখল করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে বিজেপি দল। তাই রাজ্যে আইপিএফটি দল পূর্বেও সিপিএমকে যেমন ভয় করেনি, তেমনি বর্তমানে বিজেপি -কে ভয় করবে না বলে তিনি স্পষ্ট ভাষায় জানান। তিনি জানান আইপিএফটি দলের লড়াই অস্তিত্বের জন্য লড়াই। তাই বর্তমান রাজ্য অরাজগতা থেকে মানুষ বাঁচতে হাজার হাজার কর্মী যোগদান করছে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন। তিনি গুরুত্ব দিয়ে বলেন যে ত্রিপরাল্যান্ডের দাবি হচ্ছে তাদের মূল দাবি। তাই বৃহস্পতিবার সারাদিন খুমুলুঙে আইপিএফটি কর্মী সমর্থকেরা রাস্তায় বসে টায়ার জ্বালিয়ে বিভিন্ন দাবির শ্লোগান তুলে ধর্মঘট পালন করছিলেন। 

তবে সদ্য খুমুলুঙে সাংসদ রেবতী ত্রিপুরা ও বিজেপি প্রদেশ সভাপতি ডঃ মানিক সাহার উপস্থিতিতে বিজেপির শান্তি পূর্ণ রাজনৈতিক কর্মসূচি পালনের সময় আইপিএফটি  যে ভাবে রাজনৈতিক হিংস্রতায় এলাকাকে উত্তপ্ত করেছিল তা নিন্দনীয়। এভাবেই যদি রাজ্যে  আইপিএফটি হিংসার রাজনীতি কায়েম করে তবে আগামীতে এডিসি নির্বাচনে পাহাড়ে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি তৈরি হবে।

 

কোন মন্তব্য নেই