HeadLogo

পানিসাগরের ডলুবাড়ি হালাম বস্তিতে অভিনব পদ্ধতিতে লকডাউনকে সফল করছেন স্থানীয়রা

সবুজ ত্রিপুরা, পানিসাগর প্রতিনিধি, ০২ এপ্রিল : করোনা প্রতিরোধে দেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীজীর আহ্বায়িত ২১ দিনের লক আউটকে সার্থক করে তুলতে উত্তর জেলার পানিসাগরের প্রত্যন্ত এলাকায় দেখা গেল এক উদ্যোগ। এই মারণ রোগের হাত থেকে রক্ষা পেতে দেশ জুড়ে বিভিন্ন নীতি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। প্রশাসনিক দিক দিয়েও নানান ধরনের বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। 


               তবে প্রশাসনিক হস্তক্ষেপে ও পুলিশি নির্দেশিকার অপেক্ষা না করে প্রতিটি জনগনের ব্যক্তিগত প্রয়াসকে প্রাধান্য দিয়ে নিরলস ভাবে লকডাউনকে যথাযত মর্যাদার সহিত পালন করতে আহবান জানান। এরই ফলশ্রুতিতে পানিসাগর মহকুমার ডলুবাড়ি হালাম বস্তিতে অভিনব পদ্ধতিতে লকডাউনকে সফল করার প্রচেষ্টা জারি রাখা হয়েছে।


পানিসারের ডলুবাড়ি হালাম বস্তিতে অভিনব পদ্ধতিতে লকডাউন পালন স্থানীয়দের। ছবি : রমাকান্ত দেবনাথ।

                জানা গেছে, স্থানীয় রাংলং ইয়ুথ এসোসিয়েশনের উদ্যোগে ঐ এলাকার প্রধান সড়কের দুদিকে অস্থায়ী গেট নির্মাণ করে যাতায়াতের উপর কিছুটা বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। প্রবেশদ্বারেই রাখা আছে সাবান ও হাত ধোয়ার জল। গ্রামে প্রবেশ করতে গেলে প্রথমেই সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে, তারপর মুখে মাক্স লাগালে তবেই ভিতরে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়। সকাল থেকে রুটিনমাফিক এই বিশেষ কাজের জন্য কয়েকজন এলাকাবাসিকে নিযুক্ত করা হয়েছে। তবে নুতন কাউকে গ্রামের ভিতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হয় না। সন্ধ্যা সাতটার পর গেট পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়। 


             রাংলং ইয়ুথ এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ডলুবাড়ির সভাপতি শ্রী ইমলালচুং রাংলং জানান যে, সরকারি ও প্রশাসনিক উদ্যোগের দিকে না তাকিয়ে নিজেদের গ্রাম, এলাকা কিংবা নিজের বাড়িঘরের প্রতিটি জনগনের জীবন সুরক্ষায় নিজেদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে, নতুবা এই মহামারি থেকে পরিত্রাণ পাওয়া খুবই কষ্টকর হবে। ডলুবাড়ি হালাম বস্তিতে অভিনব এই ধরনের উদ্যোগকে ঘিরে গোটা পানিসাগর মহকুমা জোরে ব্যাপক উৎসাহ পরিলক্ষিত হয়। 

কোন মন্তব্য নেই