HeadLogo

Breaking News



গৃহমন্ত্রী অমিত শায়ের কাছে চাকমা স্টুডেন্ট এসোসিয়েশনর সাত দফা দাবী, না পূরণে বৃহত্তর আন্দোলনে হুমকি




সবুজ ত্রিপুরা, নিজস্ব প্রতিনিধি, ২৯ এপ্রিল : গত ১৮ এপ্রিল জম্পুই হিলের কনফুই ওয়ানে মিজোরাম পুলিশ আইআর পঞ্চম ব্যাটেলিয়ান জোয়ানএর হাতে এলাকায় COBID-19 লগ ডাউনপালন করতে গিয়ে ত্রিপুরার কনপুই এলাকার চাকমা যুবক ও মহিলাদের উপর মারধোর অত্যাচারের বিরুদ্ধে আজ ত্রিপুরা চাকমা স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন ও ইয়ং চাকমা এসোসিয়েশনের  পক্ষ থেকে যৌথ ভাবে কেন্দ্রীয় গৃহমন্ত্রী অমিত শা এর ঠিকানায়  লিখিত ৭ দফা একটি মেমোরেন্ডাম কাঞ্চনপুর মহকুমা শাসকের কাছে প্রদান করে তাদের দাবি তুলে ধরেন।    



দাবি গুলির মধ্যে মুখ্য হল, ত্রিপুরা-মিজোরাম সীমানা পুনবিন্যাস করে জম্পুই হিলের মিজোরাম দ্বারা অধিকৃত অংশ ত্রিপুরার সাথে পুনরায় সংযোগ করে কনপুই ওয়ান গ্রাম থেকে মিজোরামের আইআর ব্যাটেলিয়ানের এর পরিবর্তে কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়োগ করা। ত্রিপুরা চাকমা স্টুডেন্ট এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদকরে বক্তব্য অনুসারে জানা যায়, যে জায়গায় বর্তমানে মিজোরামের আইআর ব্যাটেলিয়ানের ক্যাম্প অবস্থিত সেই জায়গায় ১৯৯৭ সালের পূর্বে বৌদ্ধ মন্দির ছিল। ১৯৯৭ সালে মিজোরাম সরকার বলপূর্বক বৌদ্ধ মন্দির ধ্বংস করে  ক্যাম্প স্থাপন করে যা ভারতের সংবিধান বিরোধী।


এছাড়া দাবি গুলির মধ্যে ছিল মিজোরামের  YMA, MZP দুষ্কৃতিকারীদের ত্রিপুরায় অবৈধ প্রবেশ বন্ধ করা, ১৮ থেকে ২০ এপ্রিল যে সমস্ত YMA ও MZP দুষ্কৃতিকারী ভারত সরকারের লকডাউন অমান্য করে কনপুই ওয়ানে জড়ো হয়েছিল তাদেরকে অতিসত্বর গ্রেফতার করা, যারা ত্রিপুরার বাসিন্দা অনিল চাকমার ঘর জ্বালিয়ে দিয়েছিল তাদের গ্রেফতার করা, অনিল চাকমার পরিবারের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দেওয়া। এছাড়া শান্তিলাল চাকমা, মোহনলাল চাকমা ও বিমল চাকমার নামে  যে মিথ্যা ও চক্রান্ত করে মামলা করা হয় প্রত্যাহার করা । 


আজকের এই মেমোরেন্ডাম   প্রদান করেন ত্রিপুরা চাকমা স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন জেনারেল সেক্রেটারি সাধন চাকমা ও দুই জনের প্রতিনিধি দল। উনারা আরও জানান তাদের দাবি গুলি পূরণ না হলে আগামী দিনে বৃহত্তর আন্দোলনে যাবেন। 


ছবিঃ রমাকান্ত দেবনাথ 

কোন মন্তব্য নেই