প্রশাসনের অনুমতি পেয়ে দীর্ঘ প্রায় নয় মাস পর শুরু হয়েছে চরিলাম গবাদি পশুর বাজার - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
০৭ ডিসেম্বর ২০২০  
সোমবার

বিশালগর প্রতিনিধিঃ দীর্ঘ প্রায় নয় মাস পর শুরু হয়েছে চরিলামে গবাদি পশুর বাজার। খুশি গবাদিপশুর ব্যবসায়ী এবং কৃষকরা। করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন যাবৎ চরিলাম গবাদি পশুর বাজার বন্ধ ছিল। যার ফলে প্রচন্ড ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছিলেন গবাদিপশুর ব্যবসায়ীরা এবং কৃষকরা। ত্রিপুরা রাজ্যের মধ্যে বিখ্যাত গরু বাজার চরিলাম গবাদি পশুর বাজার। দূরদূরান্ত থেকে কৃষকরা তাদের গবাদি পশু গুলি বিক্রি করার জন্য চরিলাম বাজারে নিয়ে আসতেন। 


নয় মাস যাবত বাজার বন্ধ থাকার ফলে গবাদি পশুর দাম একেবারেই তলানিতে এসে ঠেকেছে। যার ফলে গোপালকরা ও গবাদি পশু লালন পালন বাড়িঘরে একপ্রকার বন্ধ করে রেখেছিলেন। কারণ প্রয়োজনের সময় গবাদি পশু বিক্রি করতে গিয়ে তারা সঠিক দাম পাচ্ছিলেন না বলে অভিযোগ করেছেন। বাজার বন্ধ থাকার ফলে ভীষণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিলেন ব্যবসায়ীরাও। আবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল ছোট বড় ট্রাক অটো এবং বোলেরো গাড়ি গুলিও। 


এই সোমবার থেকে পুনরায় গরু বাজার চালু হওয়ায় খুশি গবাদিপশুর ব্যবসায়ীরা। যদিও এই সোমবারে বেশি গরু আসেনি বাজারে এবং গবাদি পশুর ব্যবসায়ী ও বেশি পরিমাণে আসেনি বলে জানিয়েছেন দুইজন গবাদিপশুর ব্যবসায়ী সাদ্দাম হোসেন এবং সিদ্দিক মিয়া। এই দুইজন ব্যবসায়ী এবং কৃষক আবেদন জানিয়েছেন মহকুমার সমস্ত গবাদিপশুর ব্যবসায়ীদের কাছে যাতে করে সামনের সোমবার থেকে প্রত্যেক কৃষক গবাদিপশু ব্যবসায়ী সবাই যেন চরিলাম গবাদিপশুর বাজারে আসেন। 


তবে গবাদিপশুর ব্যবসায়ীরা আশা প্রকাশ করেছেন সামনের সোমবার থেকে বাজারে প্রচুর গরু আসবে। কারণ হঠাৎ করে প্রশাসনিক অনুমতি পেয়ে এই সোমবার থেকে চালু হয়েছে গরু বাজার অনেকে জানেন না। গবাদিপশুর ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন অনেকদিন ধরে বাজার বন্ধ থাকায় আমরা ভীষণ ক্ষতির মুখে পড়ে গিয়েছিলাম। যাক প্রশাসন অনুমতি দেওয়ায় আমরা খুশি এমনটাই জানিয়েছেন গবাদিপশুর ব্যবসায়ীরা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য

Close Menu