HeadLogo

রেল লাইনের উপর ওভার ব্রিজ তথা লেভেল ক্রসিং এর দাবিতে অবরোধ - Sabuj Tripura News

সবুজ ত্রিপুরা
১১ আগস্ট ২০২০
মঙ্গলবার   

পানিসাগর প্রতিনিধিঃ পানিসাগর মহকুমার অন্তরগত চন্দ্রহালাম পাড়া,ডলুবাড়ি  এ,ডি,সি,ভিলেজের চার নং ওয়ার্ডে বিগত মেঘা লক চলাকালীন সময়ের প্রাক্কাল থেকে এলাকাবাসীদের আশ্বাস দিয়ে বার বার প্রতারণা করছে ভারতীয় রেল দপ্তরের কতিপয় আধিকারিকরা। অথচ অবৈধ ভাবে এই রেল লাইন অতিক্রম করে প্রতিদিন শত শত ছাএ ছাএি তথা এলাকাবাসী থেকে  শুরু করে মেহনতি অংশের জুমিয়া গন প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারা পার করে চলেছেন। ফলে এই নিয়ে দফায় দফায় বার কয়েক এলাকাবাসীদের পক্ষ থেকে রেল লাইন অবরোধ করলেও রেল দপ্তরের উদাসীনতায় কোন সঠিক সমাধান পায়নি এলাকার জনগন। 


তাই বিগত কিছু দিন পূর্বে রেল দপ্তরের কতিপয় আধিকারিকের আশ্বাসে কিছুটা স্বস্তি পেলেও কালক্রমে এরা পুনরায় বুঝতে পারে যে, এবার ও এরা প্রতারনার  স্বীকার হয়েছেন। তাই বাধ্য হয়ে আগাম মহকুমা প্রশাসন তথা রেল দপ্তরকে অবগত করে লকডাউন চলাকালীন সময়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দল,মত, জাতি, ধর্ম,বর্ন, নির্বিশেষে সকলের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় রেল রাস্তা অবরোধ করে এবং  দাবি না মানলে কোন প্রকারেই অবরোধ প্রত্যাহার করা হবে না বলে জানান অবরোধকারীরা। ফলে অবরোধের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছায় পানিসাগর মহকুমা শাসক লাল নুননেইমি ডার্লং, বিডিও হোমাগ্নি ভট্টাচার্য, এসডিপিও অভিজিৎ দাস, পানিসাগর থানার বড় বাবু সৌগত চাকমা সহ অন্যান্য আধিকারিক বৃন্ধ।  


এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অবরোধ কারিদের পক্ষে বিজয় হালাম,এমলাল চুঙ হালাম,রাম প্রসাদ হালাম, স্থানীয় এলাকার নির্বাচিত মেম্বার বাহাদুর জয় হালাম। এলাকাবাসীদের তরফথেকে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে জানানো হয় যে, এই রাস্তাটি অতি প্রাচীন রেল লাইন সৃষ্টি লগ্নের আগে থেকেই এলাকাবাসীদের যাতায়াতের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হত।  কিন্ত রেললাইন নির্মাণের পর থেকেই এলাকাবাসী তথা গোটা উওর জেলার একমাএ কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়টির ছাএ ছাএিদের যাতায়াতের মাধ্যমটিকে বঞ্চিত করে কোন লেভেল ক্রসিং বা কোন ওভার ব্রিজ না দিয়ে বরং রাস্তাটিকে সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়া হয় । 


তাছাড়া অবরোধ কারিদের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয় যে এই রাস্তাদিয়ে প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারা পার করতে গিয়ে এখন পর্যন্ত মোট সাত জনের মৃত্যু হয়েছে। তাই এলাকাবাসীদের এই ন্যায্য দাবিকে স্বাগত জানিয়ে কেন্দ্রীয় রেল দপ্তরের কাছে তাদের বিনম্র আহবান, ঐ এলাকায় যেন অতি শীঘ্রই একটি লেভেল ক্রসিং অথবা ওভার ব্রিজ স্থাপন করা হয়। সংবাদ সংগ্রহ পর্যন্ত মহকুমা প্রশাসনের আধিকারিকরা উপস্থিত হলেও রেল দপ্তরের আধিকারিকরা গোটা কয়েক আর,পি,এফ,জোয়ানদের স্থানান্তর করে পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যস্ত। 


এই মর্মে উওর জেলার  জেলা সমাহর্তা তরি গড়ি ঐ এলাকার শুভবুদ্ধি সম্পন্ন জনগন তথা অবরোধ কারিদের নিয়ে ধর্মনগর স্হিত জেলা সমাহর্তা অফিসে জরুরি কালীন বৈঠকের আহবান করেন। এদের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয় যে,আজ দুপুরে স্থানীয় এলাকার বিধায়ক বিনয় ভূষণ দাস মহাশয় এলাকায় গিয়ে অবরোধ কারিদের সাথে আলোচনা ক্রমে রাজ্য প্রশাসনের এবং কেন্দ্রীয় রেল দপ্তরের যৌথ প্রয়াসে বিষয়টি মিটমাট করার পরামর্শ দেন। এতেও অবরোধ কারিদের সন্তুষ্ট করতে পারেনি। ঐ দিকে আজ সকাল থেকেই পানিসাগর রেল ষ্টেশনে একটি মালবাহী ট্রেন অবরোধের জেরে আটকা পড়ে আছে। অবরোধকারিরা তাদের যথাযথ দাবি পুরন না হলে এক পা ও পিছপা হবে না এবং তাদের অবরোধ চালিয়ে যাবে বলে জানানো হয়।

 

কোন মন্তব্য নেই