HeadLogo

জম্পুই পাহাড়ে খোলামেলায় আহার্য্য হিসাবে বন্যপ্রাণী বিক্রি



সবুজ ত্রিপুরা, কাঞ্চনপুর প্রতিনিধি, ১১ ফেব্রুয়ারী :- নিষিদ্ধ ও বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির বন্যপ্রাণীদেরকে আহাররূপে গ্রহণ করছে মানুষ! এতদিন পর্যন্ত কেবল পাচারেই সীমাবদ্ধ এই বন্যপ্রাণীরা এবার আহারের অন্তর্ভুক্ত হয়ে উঠল।




ঘটনার বিবর‌নে প্রকাশ, উত্তর জেলার কাঞ্চনপুর মহকুমার অন্তর্গত জম্পুই পাহাড় থে‌কে লুপ্তপ্রায় অজগর সাপ ধ‌রে স্থানীয় সিমলোং খোলা বাজা‌রে প্রায় ১০০০টাকা কে‌জিতে বি‌ক্রি হ‌চ্ছে। সর্বমোট ৬‌টি অজগ‌র ধরা হয়েছে, যাদের ওজন ১ কুইন্টাল ৫০ ‌কিলো এবং যার মূল্য লক্ষ টাকার কাছাকাছি। সূত্রে খবর অনুযায়ী, প্রায়শঃই এমন হ‌য়ে থা‌কে, কিন্তু সংব‌াদটি প‌রি‌বেশন না কর‌লে এটা যেন কোনও স্বাভা‌বিক ঘটনা।‌

লুপ্তপ্রায় অজগর সাপ আহার্য্যরূপে বিক্রি হচ্ছে জম্পুই পাহাড়ে। ছবি : টিংকু নাথ।
এই সমস্ত বন্যপ্রাণীরা যেখা‌নে লুপ্তপ্রায় বলে ঘোষিত হয়েছে, সেখা‌নে এদের সংরক্ষণ ও সুরক্ষায় বন দপ্ত‌রের যথেষ্ট সক্রিয় ভূ‌মিকা থাকার কথা, কিন্তু কোথায় কি? আর বিস্ময়ের কথা হল, কেবলমাত্র অজগর সাপই নয়, অন্যান্য লুপ্তপ্রায় প্রজাতির হরিণ, ব্যাঙ, মূল্যবান প‌া‌খি যেমন - ময়না, টিয়া, ধ‌নেশ ইত্যা‌দিও এইভাবেই বি‌ক্রি হয়ে থাকে।




একদিকে করোনা ভাইরা‌সের প্র‌কোপে সারা বি‌শ্বে হাই এলার্ট জা‌রি করা হয়েছে, সেখানে এইপ্রকার বন্যপ্রাণীর আহার যেকোনও সময় বড় বিপদ ডে‌কে আনতে পারে। এখন দেখার বিষয় বনদপ্তর এ বিষয়ে কি ভু‌মিকা নেয়। ত‌বে জানা গে‌ছে যে, কাঞ্চনপুর মহকুমার জেলা বন আধিকারিক এ গম্ভীর বিষয়টির সরজ‌মি‌নে তদ‌ন্তের জন্য তৎপর হয়েছেন।

কোন মন্তব্য নেই